ফাঁসি মওকুফের আড়াই বছর পর কারামুক্তি: বহর নিয়ে এলাকায় ফিরলেন আ.লীগ নেতা তারা মিয়া

খবর

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর টাইমস:
ফরিদপুরের বহুল আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর মলয় বোস হত্যা মামলার প্রধান আসামী আওয়ামী লীগ নেতা ইমামুল হোসেন তারা মিয়া কারাগার হতে মুক্তি পেয়েছেন। ২০১৮ সালের ৩০ নভেম্বর হাইকোর্ট হতে তিনি ওই ফাঁসির দন্ড হতে খালাস পেলেও নথিপত্রে ত্রুটির কারণে কারাগার হতে বের হতে পারছিলেন না।

ইমামুল হোসেন তারা মিয়া অবিভক্ত নগরকান্দা-সালথা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ছিলেন। তিনি সালথার গট্টি ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন।
২০১৩ সালের ২৪ মার্চ ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইবুনালে আটঘর ইউপির তৎকালীন চেয়ারম্যান মলয় বোস হত্যা মামলার রায়ে ইমামুল হোসেন তারা মিয়া সহ ৯ জনের ফাঁসির আদেশ হয়েছিল। এরপর ২০১৮ সালের ৩০ নভেম্বর হাইকোর্ট হতে তিনি ওই মামলা হতে খালাস পান। তবে উচ্চ আদালতের রায়ে খালাস পেলেও নথিপত্রে ত্রুটি থাকায় দীর্ঘদিনেও তিনি কারামুক্তি পাচ্ছিলেন না। অবশেষে গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা হতে তাঁর মুক্তির আদেশ সংক্রান্ত নথি ফরিদপুর কারাগারে পৌছানোর পর তিনি আজ বুধবার আইনিপ্রক্রিয়া শেষে কারামুক্তি পান।

জেলা কারাগার সূত্র জানায়, বুধবার বেলা ১১টার দিকে তিনি ফরিদপুর জেলা কারাগার হতে মুক্তি পেয়ে বেরিয়ে আসেন।

এ ঘটনায় আজ বুধবার (১২ মে) দুপুরে সালথা উপজেলার নকুলহাটি বাজারে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াহাব মোল্লার নেতৃত্বে একটি আনন্দ মিছিল বের করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, সালথা উপজেলা আওয়ামীলীগের সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আলিম মোল্লা, আটঘর ইউনিয়ন আওয়ামীগীগ নেতা মুজিবুর রহমান ও ফেলু মোল্লা, উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আবু মঈন বিজয় প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

এরপর বুধবার বিকেলে তিনি একটি বিশাল গাড়িরবহর নিয়ে এলাকায় ফিরেন। তাঁর এ কারামুক্তির ঘটনা এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

ফরিদপুরের সালথা থানার আটঘর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান মলয় কুমার বোসকে ২০১২ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি কুপিয়ে হত্যা করা হয়। মলয় বোস আটঘর ইউনিয়নের সাড়ুকদিয়া গ্রামের মৃত মনিন্দ্রনাথ বোসের ছেলে।

হত্যার দুই দিন পর ৯ ফেব্রুয়ারি মলয় বোস এর স্ত্রী ববিতা বোস বাদী হয়ে আওয়ামী লীগ নেতা তারা মিয়াকে প্রধান আসামী করে ২১ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরো পাঁচ থেকে ছয়জনকে আসামি করে ফরিদপুরের কোতোয়ালি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে মামলাটি ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৪-এ স্থানান্তর করা হয়।

মামলায় বিচার শেষে ২০১৩ সালের ২৪ মার্চ ঢাকার দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনাল-৪ নয়জনকে মৃত্যুদণ্ড ও ১২ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়ে রায় দেয়। এ ছাড়া একজনকে ২ বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তরা ছিলেন- ইমামুল হোসেন তারা মিয়া (৬৫), বকুল মাতুব্বর (৩২), মিজানুর মোল্লা (২২), মামুন মাতুব্বর (২৩), হাশেম মোল্লা (৪৭), মোশারফ হোসেন মোল্লা (৩২), মনিরুজ্জামান শেখ (২৮), উজ্জ্বল বেপারী (২৮) ও বেলায়েত হোসেন বেলা(২২)।

আসামিদের মধ্যে আজাদ মোল্লা (৩৮), সোহেল মিয়া (২৬), আমিনুর মাতুব্বর (৩৬), সত্তার মোল্লা (২৫), নজরুল শেখ (২৮), নসরু খান (২৯), হাতেম মোল্লা (৪৫), অলিয়ার রহমান অলি (২৬), ইমরান মাতুব্বর (২৫), আক্কাস শিকদার (২৪), মিরাজ সরদার (২৮), সেন্টু মাতুব্বরকে (২২) যাবজ্জীবন করাদণ্ড দেন বিচারক।

২০১৮ সালের ৩০ নবেম্বর নিম্ন আদালত থেকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেওয়া ৯ আসামির মধ্যে ৫ জনকে ফাঁসির বদলে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন হাইকোর্ট। মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত বাকী ৪ আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া নিম্ন আদালতে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ১২ আসামির মধ্যে ৪ জনের সাজা বহাল রাখা হয় এবং বাকীদের খালাস দেন হাইকোর্ট। এ মামলায় সবমিলে সাজাপ্রাপ্ত ২১ আসামির মধ্যে ৯ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন হাইকোর্ট। বাকী ১২ জনকে খালাস দেওয়া হয়। এ ছাড়াও ২ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত জাহাঙ্গীর ফকিরকেও খালাস দেওয়া হয়।

বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুস ও বিচারপতি এ এস এম আব্দুল মবিনের হাইকোর্ট এ রায় দেন।
যাদের মৃত্যুদণ্ড থেকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয় তারা হলেন- উজ্জল বেপারী, মিজানুর রহমান, মামুন মাতব্বর, মনিরুজ্জামান শেখ ও বেলায়েত হোসেন। এ ছাড়া যে চারজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বহাল রাখা হয়েছে তারা হলেন- সাত্তার মোল্লা, আক্কাস শিকদার, নজরুল শেখ ও ইমরান মাতব্বর।

Related Posts

খবর

মেগচামী ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

এনামুল খন্দকারঃমধুখালী উপজেলার মেগচামী ইউনিয়নের সেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন গতকাল শুক্রবার দুপুর ৩ টায় মেগচামী ইউনিয়নের বিল আড়ালিয়া বাজারে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক

খবর

মধুখালিতে জাহাঙ্গীর হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেফতার দাবিতে মানবববন্ধন

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর টাইমস:

ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার কামালদিয়া ইউনিয়নের মাকড়াইল গ্রামে ব্যবসায়ী হোসেন মিয়া হত্যা মামলার আসামিদের গ্রেপ্তার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন গ্রামবাসী।বৃহস্পতিবার (১৭

খবর

স্ত্রীর সামনেই হত্যা হলো স্বামী, পুত্রকে নিয়ে গুম করলো লাশ!

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর টাইমসঃ

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার চরকান্দা গ্রামে এক ব্যক্তিকে হত্যার অভিযোগে হত্যা মামলার বাদি ওই নিহত ব্যক্তির স্ত্রী ও পুত্রসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

খবর

শপথ নিলেন নগরকান্দা পৌরসভার মেয়র নিমাই সরকার

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর টাইমসঃ

মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে দীর্ঘদিন চিকিৎসার পর কিছুটা সুস্থ হয়ে নগরকান্দা পৌরসভার মেয়র হিসেবে শপথ গ্রহণ করেছেন নিমাই চন্দ্র