October 21, 2020

রাতের আঁধারে সিঁদ কেটে স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ করেছে প্রবাসী নারীর স্বামী

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর টাইমস:

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার সাতৈর ইউনিয়নের মুজুরদিয়া গ্রামে রাতের আঁধারে ঘরের সিঁদ কেটে সপ্তম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে তুলে নিয়ে গেছে এক প্রবাসী নারীর স্বামী।

সারাদেশে নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে যখন বাংলাদেশের পুলিশ রাজপথে আন্দোলনে নেমেছে ঠিক তখনই এ ঘটনা ঘটেছে। বোয়ালমারী থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অপহৃত ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।

বোয়ালমারী থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুর রহমান বলেন, একই গ্রামের মোসলেম শেখের ছেলে লাবলু শেখ (৩৮) এর বিরুদ্ধে ওই কিশোরীকে অপহরণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। অপহৃতাকে উদ্ধারে জোর চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

তিনি জানান, লাবলু শেখ বিবাহিত। দু’টি সন্তানও রয়েছে তার। আর তার স্ত্রী সৌদি আরবে গিয়েছে গৃহকর্মীর কাজ করতে। এব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে জয়নগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নজরুল ইসলামকে নিযুক্ত করা হয়েছে।

অপহৃতা ওই স্কুল ছাত্রী দাদপুর ইউনিয়নের কমলেশ্বরদী উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী। তার বাবা বলেন, স্কুলে যাওয়া আসার পথে লাবলু তার মেয়েকে প্রতিনিয়ত অশালীন কথাবার্তা বলতো ও উত্তক্ত করতো। লাবলুর পরিবারকে বিষয়টি জানানোর পর সে আরো উগ্র হয়ে মেয়েকে উত্তক্ত করতে বাড়ির আশেপাশে এসে অবস্থান নিতে থাকে।

তিনি বলেন, মেয়ের নিরাপত্তার জন্য আমরা তার ঘরের বাইরে দরজায় তালা মেরে আমরা স্বামী-স্ত্রী বারান্দায় ঘুমিয়ে ছিলাম। এ অবস্থায় শুক্রবার দিবাগত রাতে ঘরের সিঁদ কেটে আমার মেয়েকে অপহরণ করে নিয়ে গেছে লাবলু।

স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার মোঃ বাহারউদ্দিন বলেন, লাবলু শেখ দুর্ধর্ষ প্রকৃতির। দুই মাস আগে একবার রাতের বেলায় প্রকৃতির ডাকে ঘরের বাইরে বের হলে সে মেয়েটির হাত ধরে টানাহেচড়া করতে যেয়ে ধরা পড়ে।

জয়নগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নজরুল ইসলাম বলেন, মামলায় দাখিলকৃত এজাহারের তদন্তের পাশাপাশি মেয়েটিকে উদ্ধারে জোর চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

Please follow and like us
error0
Tweet 20
fb-share-icon20