October 21, 2020

সুনসান ভোটকেন্দ্রে জালভোটের ছড়াছড়ি

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর টাইমস:

ব্যাপক হারে জাল ভোট দেয়ার মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের উপনির্বাচন। শনিবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রগুলোতে সারা দিনে ভোটারদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা না গেলেও ব্যালট বাক্সগুলো সময় গড়ানোর সাথে সাথে ভরে উঠতে থাকে। সরকার দলীয় নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর নেতাকর্মীরা ছাড়াও নৌকা সমর্থক এক প্রার্থীর এজেন্টরা দায়িত্বপ্রাপ্ত ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের সামনেই ব্যালট পেপারে সিল মেরে বাক্স ভরাতে দেখা গেছে।

সাংবাদিকরা এসব কেন্দ্র পরিদর্শনে গেলে তাদেরও বাধা দেয়া হয় পেশাপত দায়িত্ব পালনে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোনোপ্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যাপক নজরদারির ব্যবস্থা নেয়। জুডিশিয়াল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটও নিযুক্ত করা হয় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে।

একটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরুর আগেই সিল মারা ব্যালট বাক্স পাওয়ার পর ওই কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়।

ভোটগ্রহণ চলাকালে চরভদ্রাসন উপজেলা সদরের পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে নৌকা ও আনারসের বাইরে অন্য কোনো প্রার্থীর এজেন্ট নেই। ওই কেন্দ্রের বিভিন্ন কক্ষে দেখা যায়, নৌকার ব্যাজ পরা খণ্ড খণ্ড দলে বিভক্ত হয়ে যুবকেরা বিভিন্ন কক্ষে ঢুকছে ও বেরুচ্ছে।

নারীদের ভোট কক্ষের সামনে গিয়ে দেখা যায়, রায়হান শেখ নামে আনারসের একজন এজেন্ট কাজী নাহিদা সুলতানা নামে একজন ভোটগ্রহণ কর্মকর্তার কাছ থেকে ব্যালট পেপারের বান্ডিল নিয়ে নৌকা মার্কায় সিল মারছে।

ওই কেন্দ্রের অন্য কক্ষে যেয়ে দেখা যায়, ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি নেই। তবে সময় গড়ানোর সাথে সাথেই ব্যালট বাক্সগুলো ভরে উঠছে।

ওই কেন্দ্রের সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার শরীফ মো: মুর্তজা আহসান জানান, বেলা ১১টা পর্যন্ত তার কেন্দ্রে ৫১০টি ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

নির্বাচন সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি জানান, এখন পর্যন্ত তার কাছে কেউ অনিয়মের কোনো অভিযোগ করেনি।

ভোটার শূন্য কেন্দ্রে এভাবে ব্যালট বাক্স ভরে ওঠার চিত্র অন্য প্রায় সব কেন্দ্রেই পরিলক্ষিত হয়েছে বলে স্থানীয়ভাবে জানা গেছে।

চর নটাখোলা স্কুল কেন্দ্রের সংশ্লিষ্ট ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা জানান, সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত তাদের কেন্দ্রে ১৫০টি ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

এব্যাপারে নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বি ঘোড়া প্রতিকের প্রার্থী ওবায়দুল বারী দিপু খান বলেন, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী ও তার লোকজন জনমনে একটি ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি করে দিয়েছে। ফলে ভোটাররা ভোট দিতে আসতে ভয় পাচ্ছে। এই সুযোগে তাদের বাহিনীরা বিভিন্ন কেন্দ্রে দায়িত্বশীল কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতেই জাল ভোটের মহোৎসব চালিয়েছে। বিভিন্ন স্থানে পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সামনেই তারা ভোট দিয়েছে।

দুপুর ১২টার দিকে হাজিগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শনে আসা নৌকা প্রতিকের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: কাউছার বলেন, করোনা পরিস্থিতি ও গরমের কারণে ভোটারদের উপস্থিতি কম। তবে আস্তে আস্তে উপস্থিতি বাড়বে। তিনি তার বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষ প্রার্থীর অভিযোগ অস্বীকার করে উল্টো প্রতিদ্বন্দ্বী ওবায়দুল খান দিপুর বিরুদ্ধে হরিরামপুর ইউনিয়নের তিনটি কেন্দ্র থেকে তার এজেন্টদের বের করে দেয়ার অভিযোগ করেন।

এদিকে, চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের এ উপনির্বাচন সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা ও রির্টানিং কর্মকর্তা নওয়াবুল ইসলাম।

তিনি সাংবাদিকদের জানান, নির্বাচনে তেমন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। শুধুমাত্র চরভদ্রাসন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সকালে সিল মারা ব্যালট ভর্তি বাক্স পাওয়ার পর ওই কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়। এছাড়া সার্বিক পরিস্থিতি সুন্দর ছিল।

একজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও ১২ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, চার প্লাটুন বিজিবি ও র‌্যাবের একাধিক টিম ও পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছিল নির্বাচনকে সুষ্ঠ ও সুন্দরভাবে সম্পন্নের জন্য।

উল্লেখ্য, চরভদ্রাসন উপজেলার চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন মুশার মৃত্যুতে শূন্য হওয়া এ পদের উপনির্বাচনে সাতজন প্রার্থী অংশ নেন। তাদের মধ্যে দুজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাঁড়ান। গত ২৩ মার্চ এ নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। তবে কোভিড-১৯ -এর কারণে সেসময় নির্বাচন স্থগিত করা হয়।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, চরভদ্রাসন উপজেলায় সর্বশেষ তালিকা অনুযায়ী ৫৬ হাজার ৯৪৩ জন ভোটার রয়েছেন যাদের মধ্যে ২৮ হাজার ১৬ জন পুরুষ ও ২৮ হাজার ৯২৭ জন নারী। এর মধ্যে চরভদ্রাসন সদর ইউনিয়নে ২২ হাজার ৯৭৭ জন, গাজীরটেকে ১৯ হাজার ১৭৬ জন, চর হরিরামপুরে ১১ হাজার ১১৪ জন ও চর ঝাউকান্দায় ৩ হাজার ৬৭৬ জন ভোটার রয়েছেন। এবার ২২টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হয়।

Please follow and like us
error0
Tweet 20
fb-share-icon20