কামাল খানের কবিতা ‘নারকেল প্রজেক্ট’ ও ‘শুধরে যাও’

কবি পরিচিতি: ফরিদপুরের চরের ছেলে মোঃ মোস্তফা কামাল খান একজন স্বভাব কবি। তাঁর কবিতার মূল অনুজীব্য বিষয় হচ্ছে শোষণ বঞ্চনা। স্বচোক্ষে অবলোকন করেছেন একদল লুটেরা-লুম্ফেনের উম্মত্ততা ও আস্ফালন। নিজেও ভুক্তভোগী হয়ে শিকার হয়েছেন নিপীড়নের। তাই নিয়েই লিখেছেন এই কবিতা। দরিদ্র পরিবারে জন্ম নেয়া মোস্তফা কামাল খানের সুযোগ হয়নি উচ্চ শিক্ষা অর্জনের। জীবিকার প্রয়োজনে গাড়ি মেরামতের কাজ করেন গ্যারেজে। প্রাণের তাগিদে কবিতা লিখেন। তার কবিতা যেনো আসামের ‘মিয়া কবিতা’র মতোই শোষকের মসনদে হুল ফোটানোর মতো একেকটি বুলেট।

নারকেল প্রজেক্ট

হাজার বিঘার চরে হয়েছে
নারকেল প্রজেক্ট
ভেঙ্গে দিয়েছে দরিদ্র মানুষের অনেকগুলো বাড়ি ঘর।
তাদের জন্য বাজেট হয়েছে
অনেক অনেক টাকা
তবুও তাদের পকেট ফাঁকা!
স্বার্থের লোভে আপন স্বজনকে
দিয়েছে তারা ধোঁকা।
না বুঝিয়া হাজার বিঘার
অসহায় নিরীহ মানুষগুলো
আর কতো হবে বোকা?

শুধরে যাও

দীর্ঘ নয় মাস মুক্তি সংগ্রামের পর
পেয়েছি আমরা স্বাধীনতা।
বাংলা মায়ের সন্তানদের
রক্তের বিনিময়ে,
শহীদ হয়েছেন ত্রিশ লাখ
মুক্তিসেনা।
তাঁদের রক্তের বিনিময়ে
পেয়েছি এই স্বাধীনতা
ওরা দিয়েছে আমাদের উপহার
লাল সবুজের পতাকা।
তবে কেনো আমরা তাঁদের
দিচ্ছি ধোঁকা?
ক্ষমতা পেয়ে করছি দুর্নীতি
বানাচ্ছি সম্পদ ও কালো টাকা।।