Sun. Feb 23rd, 2020

বোয়ালমারীতে প্রক্সি দিতে এসে ৮ ভুয়া পরীক্ষার্থীর জরিমানা

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর টাইমসঃ
ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার চতুল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে এসে ধরা খেয়েছে ৮জন। শুক্রবার বিকেলে নিজ কার্যালয়ে আদালত বসিয়ে ওই ৮ জনকে সর্বমোট এক লাখ ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমান আদালত। আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী হাকিম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ঝোটন চন্দ।

আদালত সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার চতুল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির প্রথম পর্বের গণিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছিল। ওই কেন্দ্রে নির্ধারিত পরীক্ষার্থীর বদলে অন্যরা প্রক্সি দিচ্ছে এখবর শুনে ওই কেন্দ্রে অভিযান চালান ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ইউএনও ঝোটন চন্দ বেলা ১১ টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে প্রক্সি পরীক্ষা দিতে আসা ওই ৮জনকে আটক করেন। পরে বিকেলে নিজ কার্যালয়ে আদালত বসিয়ে ওই আট প্রক্সি পরীক্ষার্থীকে সর্বমোট এক লাখ ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

জরিমানা প্রদানকারী প্রক্সি পরীক্ষার্থী হলো, মায়ের পরীক্ষা দিতে আসা সুবর্ণাকে ২০ হাজার, বোনের পরীক্ষা দিতে আসা লিমাকে ২০ হাজার এবং ভাইয়ের পরীক্ষা দিতে আসা ফয়সাল শেখকে ১৫ হাজার, শুভ সরকারকে ২৫ হাজার, রাজিব খানকে ২৫ হাজার, নাইম শেখকে ২৫ হাজার, বাবর আলীকে ২৫ হাজার, সোহাগ কীর্ত্তনিয়াকে ১০ হাজার টাকা।

সত্যতা নিশ্চিত করে ইউএনও ঝোটন চন্দ বলেন, ১৯৮০ সালের পাবলিক পরীক্ষাসমূহ (অপরাধ) আইন এর ১১ ধারা অনুযায়ী এ দন্ড প্রদান করেন।

তিনি বলেন, ওই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছেন তিনি।