July 6, 2020

সদরপুরে স্বেচ্ছাশ্রমে সড়ক সংস্কার করলো হ্যান্ড অফ হেল্প ক্লাব

আহম্মদ ফিরোজ, ফরিদপুর টাইমস:
জেলার সদরপুর উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ কলেজ মোড়ের চলাচলের অনুপযোগী একটি সড়ক স্বেচ্ছাশ্রমে সংস্কার করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে হ্যান্ড অফ হেল্প নামের একটি সংগঠনের সদস্যরা। এই সড়কটি সংস্কার হওয়ায় অত্রাঞ্চলের অগণিত সাধারণ মানুষের দুর্ভোগের অবসান হলো।

জানা গেছে, সদরপুরের কলেজ মোড়ের গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটির বিরাট অংশ জুড়ে খানাখন্দ সৃষ্টি হওয়ায় গত প্রায় বছর যাবত স্থানীয়রা দুর্ভোগ পোহাচ্ছিলো। ওই সড়কটি দিয়ে পূর্বে পিয়াজখালি ও আকোটের চর ইউনিয়নের বাসিন্দারা চলাচল করে। সড়কটির উত্তরে মনিকোঠা বাজার ও চরভদ্রাসন উপজেলায় যাতায়াতের পথ এবং দক্ষিণে পুখুরিয়া হয়ে ফরিদপুরের সাথে যোগাযোগের ব্যবস্থা।

প্রতি দশ মিনিট পর এই সড়ক দিয়ে যাত্রিবাহী বাস ছাড়াও ট্রাক ও ছোটবড় নানা ধরনের যানবাহন চলাচল করে। সদরপুর কলেজ সহ বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীদের ও অত্রঞ্চলের জনগণকেও এই সড়ক দিয়েই যাতায়াত করতে হয়। দীর্ঘদিন সড়কটি সংস্কার না করায় তাদের নিদারুণ ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছিলো।

হ্যান্ড অফ হেল্প ক্লাবের সভাপতি মাসুদ রানা জানান, সম্প্রতি গোলাম সরোয়ার নামে এক ব্যক্তি বৃষ্টির পর কাঁদা জমে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়া সড়কটি নিয়ে ফেসবুকে একটি লাইভ করেন। সেটি দেখে তারা সড়কটি সংস্কারে উৎসাহী হন। গত সোমবার সকাল থেকে তারা এই সড়কটির চলাচলের অনুপযোগী অংশ সংস্কারের কাজ শুরু করেন। এর প্রায় ৭০ ফুট দৈর্ঘ্য ও ১৫ ফুট প্রস্থ অংশ সংস্কার করতে তারা নিজস্ব তহবিলে সংগ্রহ করেন ৪ ট্রাক বালি ও ২শ’ ফুট খোয়া।

হ্যান্ড অফ হেল্প ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন মোল্যা, সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক, সাংগঠনিক সম্পাদক কৃষ্ণ সরকারসহ ২০ জন সদস্যের সাথে আশেপাশের কয়েকজন স্বেচ্ছাশ্রম দেন। নিজেরাই ট্রাক থেকে খোয়া নামিয়ে, বালি টেনে, পানির পাইপের সাহায্যে সড়কটি সংস্কার কাজ করেন। দু’দিন কাজ করার পর মঙ্গলবার থেকে সড়কটি আবারো চলাচলের উপযোগী হয়ে উঠেছে।

একাজে ওই এলাকার একজন হোটেল মালিক তাদেরকে বিনামূল্যে বৈদ্যুতিক মোটরের সুবিধা দিয়ে পানির পাইপ ব্যবহারের ব্যবস্থা করে দেন। যদিও সড়কটিতে বিটুমিন কার্পেটিং হয়নি তথাপি এখন সেখানে আগের মতো চলাচলের সেই ভোগান্তি নেই। স্থানীয় জনগণ তাদের এই উদ্যোগে অনেক খুশি।

এব্যাপারে সদরপুরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পূরবী গোলদার তাদের কাজের প্রশংসা করে বলেন, দেশকে মায়ের মতো ভালবেসে এইসব তরুণের সড়ক সংস্কারের কাজ সমাজে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। তিনি তাদের সার্বিক কল্যাণ কামনা করেন।

সদরপুরের উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী শফিকুর রহমান বলেন, সড়কটিতে ইট ও বালি দিয়ে এভাবে সংস্কারের ফলে আগের মতো আর জনগণকে দূর্ভোগে পরতে হবে না। জনগণের দুর্ভোগ লাঘবে এগিয়ে আসায় তিনি হ্যান্ড অফ হেল্প ক্লাবের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

Please follow and like us
error0
Tweet 20
fb-share-icon20